স্কুলের অনুষ্ঠানে, দশম শ্রেণীর ছাত্রীর অসাধারণ নাচের ভিডিও ভাইরাল

স্কুলের অনুষ্ঠানে অনেক মজা হয়ে থাকে, তখন সবাই একসাথে হেসে খেলে দিন পার হয়ে যায়। ঐ দিন গুলো কে এখন অনেক মিস করি, সবাই তার স্কুল লাইফ অনেক বেশি মনে পরে।

আরোও পড়ুন..’মডেল পরিচয়ে ২৭ বিয়ে নায়িকা রোমানার’! রোমানা ইসলাম স্বর্ণা। নিজেকে কখনো মডেল, কখনো অ’ভিনেত্রী পরিচয় ? দিতেন। খুলতেন ভিন্ন ভিন্ন ফেসবুক আ’ইডি। আপলোড করতেন আ’প’ত্তিকর সব ছবি। এরপর প্রবাসীদের টা’র্গেট করে ‘ফ্রেন্ড’ বানিয়ে গড়ে তুলতেন প্রেমের সম্পর্ক। তারপর কখনো স্বা’মীর সঙ্গে বিচ্ছেদ, আবার কখনো স্বামী’হীন সংসারে আর্থিক অ’নটনের কথা বলে প্রবাসী ঐসব প্রে’মিকদের কাছ থেকে নিতেন টাকা।

কৌশলে অ’ন্তরঙ্গ মু’হূর্তের ছবি ও ভিডিও ধারণ করে তা ছ’ড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে লিখে নিতেন জায়গা-জমিও। প্র’তা’রিতদের দাবি, ২৭ জনের সঙ্গে এভাবে প্র’তা’রণা করে বিয়ে করে রোমানা হাতিয়ে নিয়েছেন কোটি কোটি টাকা।

ঠিক একইভাবে কখনো ফ্ল্যাট কেনা, আবার কখনো গাড়ি কেনার নাম করে রোমানা সৌদি প্রবাসী কামরুল ইসলাম জুয়েলের কাছ থেকে এক বছরে বি’ভিন্ন সময়ে নেন আড়াই কোটি টাকা।

জুয়েলের দায়ের করা প্র’তা’রণার মা*ম’লায় রোমানাসহ (৪০) তার মা ও সন্তানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তদন্ত কর্মকর্তার রি*মা’ন্ড আ*বেদন নামঞ্জুর করেছে আ*দালত। রিমান্ডের পরিবর্তে তাদের এক দিনের জন্য জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদ করার অ’নুমতি দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার বিকালে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বেগম মাহমুদা আক্তার এ আদেশ দেন। মা*ম’লার বাকি দুই আসামি হলেন, রোমানার মা আশরাফি আক্তার শেলী (৫৭) ও তার ছেলে আন্নাফি ইউসুফ ওরফে আনান (২১)।

এর আগে বৃহস্পতিবার বিকালে পুলিশ লালমাটিয়া এলাকা থেকে রোমানা ইসলাম স্বর্ণাকে গ্রে*ফ’তার করে। প্র”তারিত হওয়া প্রবাসী জুয়েল বলেন, সে আমার সঙ্গে প্রথমে প্রেমের স’ম্পর্ক গড়ে তোলে।

এরপর লালমাটিয়ায় ফ্ল্যাট কেনার নাম করে ১ কোটি ৯০ লাখ টাকা নেয়। আমি দেশে আসার পর আমাকে বাসায় ডাকে। আমি যাই। গেলে তারা আমাকে কিছুটা একটা খাইয়ে অ*জ্ঞান করে ফেলে। এরপর আমার খারাপ ছবি তুলে নেয় ও আমার থেকে স্ট্যা”ম্পে সাইন নিয়ে নেয়।

এভাবেই সে আমাকে জোর করে বিয়ে করে। তার মোবাইল, ঘড়ি, গাড়ি আর সবই আমার কিনে দেওয়া। আমাকে ডি’ভোর্স দিয়েছে বললেও তা মিথ্যা। তাই আমি আইনের আ’শ্রয় নিয়েছি

You May Also Like

About the Author: Forbes Times

Leave a Reply

Your email address will not be published.